ব্যবসায় সফলতায় মার্কেটিং ও ব্র‍্যান্ডিং

    যারা নতুন উদ্যোগ বা ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন - তারা অবশ্যই মার্কেটিং ও ব্র‍্যান্ডিং এই দুটি শব্দের সাথে পরিচিত হয়ে থাকবেন। ব্যবসা- বাণিজ্যের ক্ষেত্রে এই শব্দ দুটি অতি প্রয়োজনীয় ও তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ মার্কেটিং ও ব্র‍্যান্ডিং ছাড়া কোনো ব্যবসা বা উদ্যোগই সফলভাবে স্থাপন সম্ভব নয়। ব্র‍্যান্ডিং বলতে বোঝায় আপনার উদ্যোগ বা ব্যবসার স্বকীয়তা ও অনন্যতাকে প্রতিষ্ঠা করা। আর মার্কেটিং মানে হলো আপনার ব্যবসা, উদ্যোগ বা সেবাকে বাজারজাত করা বা ভোক্তার কাছে পরিপূর্ণভাবে তুলে ধরা। যেকোনো নতুন উদ্যোগে মার্কেটি ও ব্র‍্যান্ডিং অতন্ত জরুরি। এই দুটি বিষয়কে অবহেলা করলে কখনোই আপনার ব্যবসা বা সেবা সফলতা অর্জন করতে পারবে না । তাই মার্কেটিং ও ব্র‍্যান্ডিং সঠিকভাবে করা একটি উদ্যোক্তার সাফল্যের সাথে ওতোপ্রোতোভাবে জড়িত।  মার্কেটিং ও ব্র‍্যান্ডিং সঠিকভাবে করার জন্য কিছু নির্দিষ্ট কৌশল ও পদ্ধতি অবলম্বন করতে হয়। এগুলোকেই মার্কেটিং ও ব্র‍্যান্ডিং স্ট্র‍্যাটেজি বলা হয়ে থাকে। আজকে আমরা কিছু কার্যকর ব্র‍্যান্ডিং ও মার্কেটিং স্ট্র‍্যাটেজি নিয়ে আলোচনা করব- ১. উদ্যোগের অনন্যতা অনুধাবন - একজন উদ্যোক্তা হিসেবে আপনাকে আপনার উদ্যোগ, ব্যবসা বা সেবার অনন্যতা বুঝতে হবে। এজন্য প্রথমে আপনাকে বাজারে আপনার প্রতিযোগিদেরকে চিনতে হবে এবং আপনি যেই খাতে উদ্যোগটা নিয়েছেন সেই খাতের অন্যান্য উদ্যোগের চেয়ে আপনি কোন কোন দিক থেকে আলাদা সেই সমস্ত দিকগুলো খুঁজে বের করতে হবে আর এসব দিকগুলো কে আপনার উদ্যোগের স্বকীয়তার হিসেবে ভোক্তার নিকট অত্যন্ত আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপন করতে হবে যা হবে আপনার উদ্যোগের ব্র‍্যান্ডিং ও মার্কেটিং এর হাতিয়ার।  ২. ভোক্তাদের চাহিদা মাথায় রাখুন - মার্কেটিং ও ব্