প্রো-এ্যাক্টিভ মানুষ হওয়ার সহজ উপায়

by Shadat Hridoy

আমাদের আশেপাশে দুই ধরনের মানুষ আছে। ১) প্রো-এ্যাক্টিভ ২) রি-এ্যাক্টিভ রি-এ্যাক্টিভ হচ্ছে সেই সমস্ত মানুষ যারা আশেপাশের মানুষের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে সিদ্ধান্ত নেয়। কেউ তাদের কে খারাপ বললে তারা নিজেদের খারাপ ভাবে। আবার কেউ তাদের কে পাগল বললে তারা নিজেদের কে পাগল ভাবে। অন্যদিকে, প্রো-এ্যাক্টিভ হচ্ছে সেই সমস্ত মানুষ যারা আশেপাশের মানুষ এর কথাবার্তা, সমালোচনা, দ্বারা প্রভাবিত হয়ে সিদ্ধান্ত নেয় না। কেউ তাদের কে পাগল বলুক আর ভালো বলুক তাতে তাদের কিছু যায় আসে না। কারণ তারা নিজেদের কে চিনেন ভালো করে।

একটা গল্প দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করছি মনে করো, রনি এবং রবিন আঁড়ালে দাঁড়িয়ে শুনতেছিল তাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু আসিফ তাদের দুইজন কে নিয়ে মিথ্যা সমালোচনা করছে। এইদিকে, রনি মন খারাপ করে বসে রয়েছে তার বন্ধু তার নামে আজেবাজে কথা বলেছে ভেবে। সে বন্ধুর এমন কার্যক্রম সহজে মেনে নিতে পারলো না। পরবর্তীতে সে ডিপ্রেশন চলে গেলো। আর রবিন আসিফের কথাগুলো কে পাগলের প্রলাপ বলে উড়িয়ে দিলো। কারণ সে জানে কথাগুলো সম্পুর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। তাই সে মন খারাপ করার কারণ খু্ঁজে পায় নি। তুমি এখানে দেখতে পাচ্ছো, একটা ঘটনা প্রতি দুইজন বন্ধুর দুইরকম দৃষ্টিভঙি। এটাই হচ্ছে প্রো-এ্যাক্টিভিটি & রি-এ্যাক্টিভিটির খেলা। মূলত একটা ঘটনা প্রতি আমরা কিভাবে রিএ্যাক্ট করি এটাই হচ্ছে প্রো-এ্যাক্টিভ & রি-এ্যাক্টিভ এটিটিউট এর মধ্যে পার্থক্য। তুমি একটা স্টার্টআপ বিজেনেস শুরু করতে গেলে অনেক মানুষ তোমাকে বলবে তোমার আইডিয়া ব্যার্থ হবে। তুমি সফল হবা না। এখন তুমি যদি রি-এ্যাক্টিভ মানুষ হও তাহলে তুমি শুরু করার আগে মানুষের কথায় প্রভাবিত হয়ে হাল ছেড়ে দিবা। আর তুমি যদি প্রো-এ্যাক্টিভ মানুষ হও তাহলে তুমি চি